হেফাজতে ইসলামের সঙ্গে জঙ্গি সংগঠনগুলো সম্পৃক্ত হয়ে থাকতে পারে বলে মনে করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

রোববার (২৮ মার্চ) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

ভারতের প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরুদ্ধে আন্দোলনকারীদের হত্যা ও হামলার প্রতিবাদে রোববার হরতাল পালন করছে হেফাজতে ইসলাম।

এদিন দেশের বেশ কয়েকটি অঞ্চলে পুলিশের সঙ্গে হেফাজতের নেতাকর্মীদের সংর্ঘষের ঘটনা ঘটেছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিভিন্ন স্থানে বাড়ি ও সরকারি স্থাপনায় অগ্নিসংযোগের ঘটনাও ঘটেছে।

আর এ তাণ্ডবের পেছনে হেফাজত ছাড়া অন্য কারো হাত আছে কিনা জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘এটা থাকতে পারে। আমার কাছে মনে হচ্ছে তাদের রণ কৌশলগুলো…বাঁশের কেল্লা ইনভলব হওয়া, এখানে মনে হচ্ছে, এটা স্পষ্টই প্রতীয়মান হয়, এগুলো হয়তো আগে যে জঙ্গি সংগঠনগুলো সন্ত্রাস নৈরাজ্য সৃষ্টি করার জন্য প্রয়াস পেয়েছিল, তারাই এখানে আবার নতুনভাবে সম্পৃক্ত হয়েছে আমাদের মনে হচ্ছে। আমরা সবকিছু তলিয়ে দেখছি। যে যেখানে থাকুক আমরা কাউকে ছাড় দেবো না।’