শ্রীলঙ্কার সঙ্গে আমরা ফ্রি ট্রেড অ্যাগ্রিমেন্ট (এফটিএ) ও অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য চুক্তি (পিটিএ) করতে চান বলে জানিয়েছন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রীকে এই প্রস্তাব দেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

শনিবার (২০ মার্চ) রাজধানীর ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষের ঢাকা সফর নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

ড. মোমেন বলেন, আমরা শ্রীলঙ্কার সঙ্গে কানেক্টিভিটি বাড়াতে চাই। দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্যও বাড়াতে চাই। সে কারণে শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রীকে ফ্রি ট্রেড অ্যাগ্রিমেন্ট (এফটিএ) ও অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য চুক্তির (পিটিএ) জন্য প্রস্তাব দিয়েছি।

তিনি বলেন, আমরা সন্ত্রাস বিরোধিতায় জিরো টলারেন্স। সে কারণে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে মেরিটাইম রুটে অস্ত্র, মাদক পাচার প্রতিরোধে একযোগে কাজ করতে চাই।

শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে দেশটির সঙ্গে বাংলাদেশের ৬টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। এর মধ্যে দিয়ে আগামী দিনে উভয় দেশের মধ্যে সহযোগিতা আরও বাড়বে বলে প্রত্যাশা করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, বাণিজ্য বাড়াতে আমরা প্রথম ধাপে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে পিটিএ করতে চাই। এসব চুক্তির জন্য নানা ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষার মধ্য দিয়ে যেতে হয়। সে কারণে ছোট দেশের সঙ্গেই এই ধরনের চুক্তি করতে চাইছি।

পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন, পররাষ্ট্র সচিব (পূর্ব) মাশফি বিনতে শামস সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গত শুক্রবার দুই দিনের সফরে ঢাকায় আসেন শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষে।