আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বাহরাইনের সরকারবিরোধী আন্দোলন করার অপরাধে যে সমস্ত নারী-কিশোরীকে আটক করা হয়েছে তাদের ওপর ধর্ষণের মতো জঘন্য বর্বরতা চালানোর হুমকি দেয়া হচ্ছে। এসব নারীকে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ধর্ষণকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হতে পারে বলে হুমকি দিয়েছে বাহরাইনের নিরাপত্তা বাহিনী। পার্সটুডে।

বাহরাইনের অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠনের রিপোর্ট থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

বাহরাইন সরকারের বৈষম্য এবং শোষণ-নিপীড়নের বিরুদ্ধে ২০১১ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে প্রচণ্ড আন্দোলন শুরু হয়। তবে গত এক দশক ধরে কঠোর দমন-পীড়নের মাধ্যমেও বন্ধ করা যায় নি সে আন্দোলন।

আন্দোলনে যোগ দেয়ার জন্য যেমন রাজনীতিবিদদের আটক করা হয়েছে, তেমনি আটক করা হয়েছে সংবাদকর্মী থেকে মানবাধিকারকর্মী সবাইকে। আটক ব্যক্তিদের মধ্যে নারী ও শিশু-কিশোর থেকে শুরু করে বৃদ্ধরা রয়েছেন।

দেশটিতে বিরোধীদের আন্দোলন দমানোর নামে ভয়াবহভাবে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটলেও পশ্চিমা দেশগুলো একেবারেই চুপ রয়েছে। শুধু তাই নয়, তাদের দেয়া নানা সামরিক সরঞ্জাম ব্যবহার করা হচ্ছে বাহরাইনের জনগণের বিরুদ্ধে।