টমেটোর পুষ্টিগুণে ভরপুর হওয়ায় সালাদ বা তরকারিতে ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এছাড়াও ত্বকের জন্য অনেক উপকারী টমেটো। এতে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি-ফাঙ্গাল, ভিটামিন-সি, লাইকোপিন-এর মতো গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন উপাদান রয়েছে। ত্বকের যত্নে টমেটো ফেসপ্যাক নিয়ম অনুযায়ী ব্যবহার করতে পারলে ত্বক যেমন উজ্জ্বল হয়, ঠিক তেমনই ত্বকের পুষ্টিরও চাহিদা মেটায়। ডার্ক সার্কেল, ব্রন ও স্কিনের দাগসহ অন্যান্য সমস্যা সমাধানে টমেটোর জাদুকরী চারটি ফেসপ্যাক তুলে ধরা হলো-

টমেটো ও লেবুর ফেসপ্যাক ত্বক পরিষ্কার করে। নিয়মিত এই ফেসপ্যাক ব্যবহারের ফলে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পায়। এজন্য প্রথমে টমেটো পেস্ট করে তাতে এক চা চামচ লেবুর রস এবং সমান পরিমাণ মধু মিশিয়ে নিতে হবে। এবার পেস্টটি মুখে লাগিয়ে ১৫-২০ মিনিট পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে।

টমেটো ও জোজোবা তেল প্যাকের বিকল্প কিছু নেই ত্বকের যত্নে। টমেটোর পাল্পের সঙ্গে এক চা চামচ জোজোবা তেল এবং ৪ বা ৫ ফোঁটা টি-ট্রি অয়েল ভালোভাবে মিশিয়ে নিতে হবে। মিশ্রণটি এবার মুখে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে ২ থেকে ৩ বার লাগাতে পারেন প্যাকটি। এতে স্কিন আর্দ্র থাকবে, ব্রণ এবং স্কিনের ইনফেকশনের মতো সমস্যাও দূর হবে।

টমেটো ও চিনির ফেসপ্যাক তৈরি করার জন্য টমেটো চিপড়িয়ে রস বের করে নিন। এবার রসের সঙ্গে এক চামচ চিনি মিশিয়ে মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে ধীরে ধীরে ঘষতে থাকুন। কিছুক্ষণ ঘষে কয়েক মিনিটের জন্য রেখে দিন। মিশ্রণটি শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে আয়নায় দেখুন। ত্বক আগের থেকে অনেক উজ্জ্বল দেখাবে।

টমেটো ও ওটসের প্যাকও ত্বকের জন্য অনেক কার্যকরী। এই প্যাক বানাতে প্রথমে ১-২ চা চামচ টমেটো পাল্প, ১ টেবিল চামচ ওটস, ১ টেবিল চামচ টক দই ভালো করে মিশিয়ে নিন। পেস্টটা মুখে লাগিয়ে ম্যাসাজ করতে থাকুন কিছুক্ষণ। প্রায় ১৫-২০ মিনিট পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে নিলেই দেখতে পাবেন ত্বকের ব্ল্যাকহেডস নেই। ত্বক অনেক মসৃণও হবে। সূত্র : বোল্ডস্কাই