ডানেডিনের গড় স্কোর ৩০৭ রান। বড় স্কোর করতে সক্ষম দল। এমটাই আশা ছিল রাসেল ডমিঙ্গোর। প্রধান কোচের ভরসার প্রতিদান দিতে পারেনি বাংলাদেশ। গুটিয়ে যায় মাত্র ১৩১ রানে। মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে সহজ লক্ষ্য তুলে নিয়েছে নিউজিল্যান্ড। ২১.২ ওভারে ১৭২ বল হাতে রেখে ম্যাচটি নিজেদের করে নেয় কিউইরা। ৮ উইকেটে জয় তুলে তিন ম্যান সিরিজ ১-০ তে এগিয়ে গেল স্বাগতিকরা। আরটিভি।

ম্যাচের আগে ডমিঙ্গো বলেছিলেন, তিন ফরম্যাটের মধ্যে তার দল সবচেয়ে সেরা ওয়ানডে ক্রিকেটে। এখানেও হতাশ হতে হচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকার এই কোচকে। তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথমটিতেই ৮ উইকেটের বড় হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হলো সফরকারীদের।

শনিবার টস হেরে ব্যাট করতে নামে লাল-সবুজরা। ইউনিভার্সিটি ওভালে ট্রেন্ট বোল্টের তৃতীয় বলেই অসাধারণ একটি ছক্কায় শুরু করেন ইনিংস।

বাংলাদেশের দর্শকরা অনেকেই রাত জেগেছেন। অনেকেই খেলা দেখার জন্য ঘুম থেকে উঠেছিলেন। ভোর চারটার দিকে অধিনায়কের ৩২ তম জন্মদিনে এমন ছক্কা দেখে নিশ্চিত ভেবেছিলেন দিনটা ভালোই যাবে হয়তো!

নিরাশ করেছেন তামিম। ১৬ মিনিট ক্রিজে থেকে ১৫ বলে করেন ১৩ রান। ছক্কার পর একটি চারও আসে তার ব্যাট থেকে। তবে বোল্টের বলেই এলবিডব্লিউ হয়ে বিদায় নেন এই ওপেনার।

তিন নম্বরে ব্যাট করতে এসে বোল্টের দ্বিতীয় শিকার হন সৌম্য সরকার। তিন বলে খেলে কোনও রান তুলতে পারেননি তিনি। ৩১ বছর বয়সী এই পেসার শেষ দিকে আরও দুটি উইকেট তুলেন। ৫ বলে ১ রান করা হাসান মাহমুদ ও ৩২ বলে ১০ রান করা তাসকিন আহমেদকে বিদায় করেন।

বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ২৭ রান করেন মাহমুদুল্লার রিয়াদ। ৫৪ বল খেলে নিকোলাস হেনরির বলে মিচেল স্যান্টরারের তালুবন্দি হন তিনি। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান আসে আরেক অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিমের ব্যাট থেকে। ৪৯ বলে ২৩ রান করেন তিনি। জেমি নিশামের করা বলে মার্টিন গাপটিলের হাতে ধরা পড়েন।

লিটন দাসের ১৯ ও প্রথম বানের মতো ওয়ানডে খেলতে নামা মেহেদী হাসানের ১৪ ছাড়া কেউই দুই অংক স্পর্শ করতে পারেননি। মোহাম্মদ মিঠুন করেন ৯ রান। ১ রান করে করেন মেহেদী হাসান মিরাজ ও হাসান মাহমুদ। সমান রান করে অপরাজিত ছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান।

১৩১ রানে গুটিয়ে যাওয়ার আগে ৪১.৫ ওভার পর্যন্ত ক্রিজে থাকতে সক্ষম হয় সফরকারীরা। অন্যদিকে স্বাগতিকরা হয়তো টি-টোয়েন্টি স্টাইলেই ম্যাচটি শেষ করার কথা ভেবেছিলেন।

দীর্ঘ ছয় বছর পর অভিজ্ঞ দুই সদস্য কেন উইলিয়ামসন ও রস টেলরকে ছাড়া মাঠে নেমেছিল কিউইরা। তবে তাদের অনুপস্থিতি টের পেতে দেননি ব্যাটসম্যানরা।

ব্যাট হাতে দ্রুত রান তুলতে মনোযোগ দেন মার্টিন গাপটিল। ষষ্ঠ ওভারের তৃতীয় বলে থামতে হয় এই ওপেনারকে। দলের রান তখন ৫৪। তাসকিনের বলে মুশফিকের গ্লাভসে ধরা পড়েন গাপটিল। ১৯ বলে ৩৮ রান করে বিদায় নেয়ার আগে চারটি ছক্কা ও তিনটি চার হাঁকান তিনি।

আরেক ওপেনার হেনরি নিকোলাস ম্যাচ এগিয়ে নিতে থাকেন। অভিষিক্ত ব্যাটসম্যান ডেভস কনওয়ে কিছুটা ধীর গতিতে শুরু করেন। দুইজনে মিলে ৬৫ রানের জুটি গড়েন।

জয়ের প্রান্ত থেকে কিছুটা দূরে যেতে তরুণ হাসান মাহমুদের বলে মাহমুদুল্লাহর হাতে ক্যাচ তুলে দেন কনওয়ে। তার আগে ৫২ বলে ২৭ রান তুলেন তিনি।

৫৩ বলে ৪৯ রান করে নিকোলাস ও ৬ বলে ১১ রান তুলে উইল ইয়ং অপরাজিত থেকে ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন।

৮.৫ ওভারে ২৭ রান দিয়ে চার উইকেট তুলে ম্যাচ সেরা হয়েছেন ট্রেন্ট বোল্ট।

আগামী ২৩ মার্চ সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে মাঠে নামবে দুই দল। ক্রাইস্টচার্চে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সকাল সাতটায়।