আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, তিনি তার চীনা সমকক্ষ শি জিনপিং-এর সঙ্গে টেলিফোনালাপে করোনাভাইরাসের উৎপত্তি নিয়ে কোনো কিছু জিজ্ঞাসা করেননি। তিনি স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার আমেরিকায় কোভিড-১৯-এর টিকা প্রদান এবং করোনার নয়া ধরন ছড়িয়ে পড়ার ব্যাপারে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ মন্তব্য করেন। পার্সটুডে।

সংবাদ সম্মেলনে ফক্স নিউজের পক্ষ থেকে প্রশ্ন করা হয়, চীন করোনাভাইরাসের ব্যাপারে শুরু থেকে বিশ্বকে বিভ্রান্ত করেছে কিনা- এমন প্রশ্ন বাইডেন তার ফোনালাপে শি’কে করেছিলেন কিনা? উত্তরে বাইডেন ‘না’ সূচক জবাব দেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, “প্রেসিডেন্ট শি’র সঙ্গে আমার তেমন কোনো কথা হয়নি। আপনাদেরকে ধন্যবাদ।” একথা বলে বাইডেন সম্মেলন কক্ষ ত্যাগ করেন।

এর আগে হোয়াইট হাউজ জানিয়েছিল, গত ১০ ফেব্রুয়ারি চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং-এর সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেন বাইডেন। তখন বলা হয়, দুই নেতা করোনা মহামারী, মানবাধিকার, বাণিজ্য এবং ইন্দো-প্যাসিফিক নিরাপত্তা নিয়ে আলোচনা করেছেন।

গত ডিসেম্বরে নিউ ইয়র্ক টাইমস ও প্রোপাবলিকা এক তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করে জানায়, কোভিড-১৯ ছড়িয়ে পড়ার ব্যাপারে চীন সরকারের প্রাথমিক প্রতিক্রিয়া ছিল এই যে, তারা এ সংক্রান্ত তথ্য চেপে যাওয়ার নীতি গ্রহণ করেন। চীন থেকে বহির্বিশ্বে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আগ পর্যন্ত এই নীতিতে অটল থাকে বেইজিং।

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের পূর্বসুরি ডোনাল্ড ট্রাম্প এই ভাইরাস বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ার জন্য বহুবার চীনকে দায়ী করেছেন। তিনি এ সম্পর্কে বিশ্বকে সতর্ক না করার জন্যও বেইজিং-এর প্রতি অভিযোগের আঙুল তোলেন। চীন সরকার অবশ্য শুরু থেকেই এসব অভিযোগ অস্বীকার করে এসেছে।