একজন নারী আইনজীবী ও রাজনীতিবিদ ইউরোপের মুসলিম অধ্যুষিত দেশ কসোভোর প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন। রোববার দেশটির পার্লামেন্টে অনুষ্ঠিত ভোটাভুটিতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন ভিউসা ওসমানি সাদরিউ। পার্সটুডে।

১২০ আসনবিশিষ্ট পার্লামেন্টের ভোটাভুটিতে ৩৮ বছর বয়সি ওসমানি ৭১ ভোট পান। গত নভেম্বরে প্রেসিডেন্ট হাশেম থাচি প্রেসিডেন্ট পদে ইস্তফা দেয়ার পর অন্তর্বর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন থিউসা ওসমানি।

কসোভোয় প্রেসিডেন্ট পদটি আলঙ্কারিক হলেও ওসমানি সশস্ত্র বাহিনীর সর্বাধিনায়কের পদে বহাল থাকার পাশাপাশি পররাষ্ট্রনীতি নির্ধারণেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবেন। তিনি সার্বিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার আলোচনা আবার শুরু করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন যদিও প্রধানমন্ত্রী অ্যালবিন কুর্তি বলেছেন, এ ধরনের কোনো পরিকল্পনা তার সরকারের নেই।

১৯৯০-এর দশকের বলকান যুদ্ধের জের ধরে বহু টানাপড়েন ও চড়াই-উৎরাইয়ের পর ২০০৮ সালে কসোভো স্বাধীনতা ঘোষণা করে। বিশ্বের শতাধিক দেশ কসোভোকে স্বাধীন দেশ হিসেবে স্বীকৃতি দিলেও এখন পর্যন্ত সার্বিয়া, রাশিয়া ও চীনের মতো দেশগুলো এই দেশকে স্বীকৃতি দেয়নি।