আন্তর্জাতিক ডেস্ক: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্তের ছয় মাস পর আমেরিকার প্রতি তিনজন রোগীর মধ্যে একজন মস্তিষ্ক কিংবা মানসিক অসুস্থতায় ভুগছেন। দুই লাখ ৩০ হাজার রোগীর ওপর জরিপ চালিয়ে এই ফলাফল উঠে এসেছে। পার্সটুডে।

এতে বিজ্ঞানীরা মনে করছেন- করোনা মহামারীর কারণে সারা বিশ্বে মানসিক অসুস্থতা এবং স্নায়ুবিক সংকটের ঢেউ সৃষ্টি হবে।

জরিপের সঙ্গে জড়িত গবেষকরা বলছেন, মানসিক পরিস্থিতির সঙ্গে করোনাভাইরাসের সম্পর্কটা কী এখনো তা পরিষ্কার নয়। তবে এটি ঠিক যে, করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিদের ভেতরে ১৪ রকমের সমস্যা দেখা দিচ্ছে যার মধ্যে উদ্বেগ বা মানসিক অবসাদগ্রস্ততা অনেকটা সাধারণ বিষয়।

করোনায় আক্রান্তের পর স্ট্রোক করা কিংবা উন্মাদ হওয়ার মতো ঘটনা খুবই কম তবে যারা করোনায় মারাত্মক অসুস্থ হয়েছেন তাদের মধ্যে বিষয়গুলো বেশ উল্লেখযোগ্য।

করোনায় আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে মস্তিষ্ক ও মানসিক সমস্যা তৈরির উচ্চমাত্রার ঝুঁকি রয়েছে। ফলে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মধ্যে বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ বাড়ছে। করোনা থেকে সুস্থ হওয়া যে দুই লাখ ৩০ হাজার ব্যক্তির ওপর জরিপ পরিচালনা করা হয়েছে তার মধ্যে শতকরা ৩৪ ভাগ মস্তিষ্ক কিংবা মানসিক সমস্যায় ভুগছেন। জরিপে অংশ নেয়া বেশিরভাগই মানুষই আমেরিকার নাগরিক।