আন্দ্রে রাসেল, দিনেশ কার্তিক, এউইন মরগ্যানদের ব্যাটিং পজিশনের বারবার রদবদল করে খেলেতে হয়েছে গেল আসরে। মূল ফিনিশারের ভূমিকায় কাকে দেখা যাবে তা নিশ্চিত করতে না পারাতেই বড় সমস্যা পড়তে হয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে। তাছাড়া টুর্নামেন্ট চলাকালীন অধিনায়ক রদবদলও বড় প্রভাব ফেলেছিল নাইট শিবিরে। তাছাড়া দলে বাড়তি শক্তি হিসেবে যোগ দিয়েছেন ঘরের ছেলে হিসেবে খ্যাত সাকিব আল হাসান। সব মিলিয়ে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) নিজেদের প্রথম ম্যাচ খেলতে প্রস্তুত নাইট রাইডার্সরা।

রোববার কলকাতার প্রতিপক্ষ সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। এম এ চিদাম্বারাম স্টেডিয়ামে খেলাটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত আটটায়। সরাসরি সম্প্রচার করবে জিটিভি।

ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো বলছে, শুভমান গিলের সঙ্গে ওপেনার হিসেবে দেখা যাবে রহুল ত্রিপাঠী বা ভেঙ্কটেশ আইয়ারকে। তিনে নীতীশ রানা, চার নম্বরে খেলবেন অধিনায়ক মরগ্যান। পাঁচে দিনেশ কার্তিক। সুনীল নারিন অথবা সাকিব যে-ই খেলুক ছয়ে দেখা যাবে তাদের। তার পরই আন্দ্রে রাসেল।

এই ম্যাচে প্যাট কামিন্সের খেলা সম্ভাবনা কম। পেস আক্রমণে প্রসিদ্ধ কৃষ্ণর সঙ্গে দেখা যাওয়ার প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে কমলেশ নাগরকোটির। স্পিনিং কন্ডিশনে অভিজ্ঞতার বিবেচনায় শিবম মাভির তুলনায় এগিয়ে থাকবেন হরভজন সিং।

এদিকে ডেভিড ওয়ার্নার, জনি বেয়ারস্টো, কেন উইলিয়ামসন ও রশিদ খান সানরাইজার্স একাদশে চারজন বিদেশি ক্রিকেটার প্রায় নিশ্চিত।

দলটির অধিনায়ক বাম-হাতি ওপেনার ওয়ার্নার। আরেক ওপেনার ইংলিশ তারকা বেয়ারস্টো কয়েকদিন আগেই ভারতের মাটি দুর্দান্ত ছিলেন। অন্যদিকে নিউজিল্যান্ডের দলনেতা উইলিয়ামসন বিশ্বের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান হিসেবে পরিচিত। আফগানিস্তানের ঘূর্ণি জাদুকর রশিদ খান যেকোনও একাদশেই অটোমেটিক চয়েজ হিসেবেই জায়গা করে নিবেন।

হয়দরাবাদের ব্যাটসম্যান হিসেবে রয়েছেন মনিশ পান্ডে, বিজয় শঙ্কর, অভিষেক শর্মা, কেদার যাদব, আব্দুল সামাদরা। বল হাতে অভিজ্ঞ ভুবনেশ্বর কুমারের সঙ্গে সন্দীপ শর্মা ও টি নটরাজনদের দেখা যাবে।