ইরানের বিরুদ্ধে স্ন্যাপব্যাক ম্যাকানিজম ব্যবহার করার কোনো অধিকার আমেরিকার নেই বলে মন্তব্য করেছেন ইরানি পার্লামেন্টের জাতীয় নিরাপত্তা ও পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক কমিশনের চেয়ারম্যান মোজতাবা জুন্নুরি। পার্সটুডে।

সম্প্রতি মার্কিন সরকার জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের মাধ্যমে ইরানের বিরুদ্ধে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা নবায়ন করতে ব্যর্থ হওয়ার পর সবগুলো নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহালের লক্ষ্যে স্ন্যাপব্যাক ম্যাকানিজম ব্যবহারের চেষ্টা চালাচ্ছে।

কিন্তু জুন্নুরি আইআরআইবি’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, মার্কিন সরকার ২০১৮ সালে ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গেছে বলে এই ম্যাকানিজম ব্যবহার করার কোনো অধিকার তার নেই। ইউরোপীয় দেশগুলিও এই বিষয়ে আমেরিকার যে বিরোধিতা করেছে সেকথা উল্লেখ করে ইরানের এই আইনপ্রণেতা বলেন, আমেরিকা অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে বেশি একঘরে হয়ে পড়েছে এবং ইরানের মোকাবিলায় চরম পরাজয়ের মুখে পড়েছে।

স্ন্যাপব্যাক ম্যাকানিজম অনুযায়ী পরমাণু সমঝোতায় স্বাক্ষরকারী ইরান ছাড়া অন্য যেকোনো দেশ যদি মনে করে তেহরান এটি মেনে চলছে না তাহলে ওই দেশ জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাব উত্থাপন করলেই ইরানের ওপর জাতিসংঘের সবগুলো নিষেধাজ্ঞা স্বয়ংক্রিয়ভাবে পুনর্বহাল হবে। ভেটো ক্ষমতা প্রয়োগ করে এটিকে আটকানো যাবে না। পরমাণু সমঝোতার মাধ্যমে ওই নিষেধাজ্ঞা স্থগিত রয়েছে।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও দাবি করেছেন, তার দেশ গত ২০ আগস্ট জাতিসংঘ নিরাপত্ত পরিষদে এই ম্যাকানিজম চালু করার আবেদন জানানোর সঙ্গে সঙ্গে এটির কার্যকারিতা শুরু হয়েছে এবং এর ঠিক একমাস পর আগামী ২০ সেপ্টেম্বর থেকে ইরানের ওপর জাতিসংঘের সব নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল হয়ে যাবে। কিন্তু আমেরিকা ছাড়া পরমাণু সমঝোতার আর সব পক্ষ এবং নিরাপত্তা পরিষদের বাকি চার স্থায়ী সদস্যদেশ আমেকিরার এই বক্তব্যের ঘোর বিরোধিতা করেছে।