নিদারুণ আর্তনাদ
রাখিবার জায়গা নেই যে অভাব।
উপহার দিয়ে যাও আর ‘লাশ’
সাজিয়ে রাখবো থরে থরে!

মায়ের বুক ফাটা আহাজারি
আমার কানে পৌঁছেনা!
হয়েছি শান্ত পাথর
ঢেলে দাও কলিজায় আতর!

মনে রেখেছি ক্যাসিনো হালাল টাকা
কখনোই দেখিনি সাদা গোলাপের কাঁটা
ভুলিনি ছাতার মদের সাধ!

আমায় ফেলে দাও টাকার কাদায়
কুড়িয়ে নেব প্রয়োজনে লাল পানি
তবুও ভুলে যাবো মায়ের আহা-জারি!

ভরিয়ে দাও আমার দু-হাত
লাশের গন্ধ আমার যে বড় স্বাদ
কাল হয়তো আমি হারাবো এভাবেই
‘মা’ কাঁদবে আমার নাম ধরে।

পাগল ছেলের ভালবাসা দিও
‘মা’ কে! থাকবো না যখন আমি
ফিরিয়ে দিও আমার মায়ের আহা-জারি।