চারদিন নিখোঁজ থাকার পর উদ্ধার হয়েছেন ছোট পর্দার এক সময়ের নিয়মিত মুখ অভিনেতা শামীম আহমেদ। মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) সকালে গাজীপুরের উলুখোলা থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়েছে। একথা জানিয়েছেন অভিনেতা শামীমের স্ত্রী আশামনি। আরটিভি।

গেলো ১৪ মার্চ ভোরে শুটিংয়ের জন্য গাজীপুরের উলুখোলায় যান শামীম আহমেদ। ১৪ ও ১৫ মার্চ সেখানে শুটিং করেন। ১৬ মার্চ সকালে সেখান থেকে সিলেটে গিয়েছিলেন। কিন্তু ১৯ মার্চ রাতে তার মোবাইল ফোন কেউ ছিনিয়ে নিয়েছেন বলে স্ত্রীকে জানান শামীম। সেখান থেকে ফেরার পথে গেলো শুক্রবার থেকে নিখোঁজ ছিলেন তিনি।

শামীম বাসায় ফিরেছেন কিনা সেটি জানতে শামীমের স্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তার ফোনটি রিসিভ করেন শাশুড়ি নাজমা বেগম। তিনি গণমাধ্যমকে জানান, ‘শামীম এখনও বাসায় আসেনি। কালকে যা একটু কথা হইছে, সে আর ফোন দেয়নি, বাসায়ও আসেনি। কালকে শুধু বলছে, আমি উলুখোলায় কাজ করতেছি। আর কোনো কথা আমার মেয়ে বা আমাদের সাথে বলেনি। আপনাদের কাছে আমার আবদার, আপনাদেরও তো মা-বোন আছে, আপনারা ওইভাবে দেখেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘শামীম মাঝে মাঝেই এরকম করে। দশদিনে, সাতদিনে আসে কিন্তু নিখোঁজ হয়ে যায়নি। এবার সে আমার মেয়ের কাছ থেকে নিখোঁজ হয়ে যেতে চায়। এমনিতে বাসা থেকে গেছে ভালো, কার ভেতর কি আছে সেটা তো আমরা জানি না বাবা।’

স্ত্রীর কাছ থেকে কেন নিখোঁজ হতে চান শামীম? এ প্রসঙ্গে তার শাশুড়ি জানান, ‘আমরা তো কিছু বলতে পারতেছি না, সন্দেহ করতেছি। শামীম নেশা করে, আমার মেয়ের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে। আমার নাতিদেরও তেমন খোঁজ নেয় না। ও নিজেই কাজ করে, নিজেই খায়।’